Never stop learning
Skip to toolbar

আমার দেশ-RACHAYEETA RAY-3rd-Bangla Article

একসময় শুধু স্বপ্ন ছিল আমার দেশের স্বাধীনতা। এই স্বপ্নকে চরিতার্থ করতে শয়ে শয়ে যোদ্ধা নিজেদের সবটুকু সমর্পণ করে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন ঐ স্বাধীনতার সূর্য টাকে দেখানোর জন্য। তাঁরা চেয়েছিলেন একটা দেশ যেখানে বিভেদ থাকবে না। মাথার ওপর কেউ শাসনের ছড়ি ঘোরাবেনা। যেখানে না থাকবে এক বিশেষ জাতির প্রতি ঘৃণা ( যেমনটা ইংরেজদের ছিল ভারতীয়দের প্রতি), না থাকবে ক্ষুধার লড়াই। সকল ধর্ম, বর্ণ, জাতির থাকবে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান। সেই দেশের স্বপ্ন তাঁরা দেখেছিলেন যেখানে মানুষকে শুধু মানুষ হিসাবে গণ্য করা হয়।

পেরেছিলেন তাঁরা, স্বাধীনতা আনতে পেরেছিলেন। কিন্তু? ঐ সব শুভ সমাপ্তি র মাঝে একটি কিন্তু থেকে যায়। স্বাধীনতা অর্জন করতে আমার দেশকে অনেক জীবন উৎসর্গ করতে হয়েছে, সেই আঘাতের ক্ষত হয়তো সেরে উঠতো যদি সেই চিরস্থায়ী ক্ষত না তৈরি হতো। ইংরেজ দেশ ছেড়ে গেলো কিন্তু দেশের উপর তরোয়ালের সবচেয়ে বড় কোপটা বসিয়ে দিয়ে গেলো। আমার সর্ব ধর্ম সমন্বয়ের দেশকে চিরকালের মতো ভাগ করে দিয়ে গেলো।

যাঁরা দেশের জন্য প্রাণত্যাগ করেছিলেন তাঁরা নিশ্চিত ভাবেই এই স্বাধীনতা চাননি। আজ যখন আমরা নিজেদের মধ্যে ভেদ ভাবে মত্ত হয়ে উঠি, সকলের জন্য খাদ্য ও কর্মের সংস্থান না করে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভেদাভেদের খেলায় মেতে উঠি, ধর্মান্ধতা ও কুসংস্কারের অন্ধকারে আমাদের দেশকে তলিয়ে যেতে দেখি, তখন আমরা অপমান করি আমাদের অর্জিত স্বাধীনতাকে, সেই স্বাধীনতা আন্দোলনের সৈনিক দের বলিদান কে। এরজন্য আর যাই হোক আমরা দেশ দরদী, জাতীয়তাবাদী ভারতীয় হিসাবে নিজেদের কখনোই দাবি করতে পারিনা।
স্রোতের টানে গা ভাসিয়ে দিলে স্বাধীনতা কথাটাই অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়ে। আসুন আমরা ভাবতে শিখি, বুঝতে শিখি, জানতে শিখি আর যুক্তি দিয়ে বিচার করতে শিখি, সর্বোপরি অন্যায়কে প্রশ্ন করতে শিখি। এই হোক আগামী স্বাধীনতা দিবসে ভারতীয় হিসেবে আমাদের অঙ্গীকার। আবার হোক নবজাগরণ।

ALSO READ  Birth Anniversary – J.R.D. Tata – Visionary, Entrepreneur, Aviator

More From Author

What’s your Reaction?
+1
+1
+1
+1
+1
+1
+1
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x