Never stop learning
Skip to toolbar

ছুটতে থাকা

বয়স আমার ছুটছে তাড়াতাড়ি ছুটছে সে ওই একলা আমায় রেখে তার হিসেবে নেই যে ছাড়াছাড়ি পাল্লা দিয়ে ছুটছি জীবন থেকে! আদোও কি সেই শৈশবে সব ছিল? বৃক্ষ ভরা নিরব মাটির কাছে? সে-ই সে আমায় রক্তজবা দিল, রক্তে গড়া স্বপ্ন কেমন বাঁচে? বয়স ছোটে নিয়ে হাজার আশা কল্পনা সব আকাশ টেনে নিল গন্ধ হারায়, হারায় আপন ভাষা বয়স আমায় বিক্রি করেই দিল! সেই সে কোথায় একলা ফেলে রেখে জীবন বাড়ে বিরাট হবার নেশায়। জগৎ পিছে ভ্রান্ত মিছিল এঁকে আজ কেন সে […]

Read more

ভূমিহীন সমাচার

ভূমিহীন হলো রাস্তার চিৎকার ভূমিহীন হয়, মুখরিত সুখ রব কোলাহলে ছোঁয়া আলোড়িত পারাপার খাদে পড়ে যায় ভ্যাবাচ্যাকা শৈশব! বুঝলোনা কেউ কী হলো কার ঘটে! কার সমাচার কে করে বেদখল? নেশাময় ঘোর সকল খোয়ালো বটে খোয়ালো শান্তি, স্বপ্নিল কলরোল! পায়ের তলেতে মাটি নিয়ে দৌঁড়ায় সাজানো গোছানো ধূসরিত সংসার ভূমি, ছাদ কিছু হারাবার ছিল, তায় চিৎকার বেড়ে ওঠে বুক জুড়ে তার! সত্যের সব ভূমিহীন ভস্মে মাটিতেই মিশে গড়াগড়ি খেয়ে যায় মাটিময় সুখে, পরিণত বয়সে সব সংগ্রাম দূরে শুধু হাসে, হায়! Tasfia Tabassum

Read more

ছড়ার রাজা রবীন্দ্রনাথ

ছড়ার ছলে হাসি মজায় দেখিয়ে দিলে কত কি সমাজ তখন ছিলো কেমন লোকগুলো বা ছিলো কি । বড়বাবু খাটিয়ায় বসে বসে পান খায় পদ্মমণির চচ্চড়িতে সে কি ঝাল লঙ্কার হাসপাতালের ঘোষাল মাখন সে জন বড় বিজ্ঞ পচা মাছের রান্না যোগে করলো সবার শ্রাদ্ধ । লাল বাঁদরে নাচতে থাকে রামছাগলের ঘাড়ে গোকুল ছোঁড়া গাছে চড়ে সুপারী পেড়ে আনে কাঁসারী চলে বাজিয়ে কাঁসা অলিগলি ঘুরে গিন্নীরা সব বাসন কেনে ছেঁড়া কাপড় দিয়ে । এডিটরে এডিটরে লেগে যায় যুদ্ধ কে যে কবে কি […]

Read more

কবিকে স্মরণ

একটা প্রশ্ন ছিল কবি? তুমি কি কেবল ২৫ এ বৈশাখ আর ২২ এ শ্রাবণেই সীমাবদ্ধ – তা তো নয়। তুমি তো জীবনের প্রতিটি ক্ষণের সাথী। সুখ, দুঃখ, আনন্দ, বেদনা, চাওয়া, পাওয়া সবেতেই তোমাকে অনুভব করি। তোমার সৃষ্টি জীবনের তরীকে বয়ে নিয়ে চলে, কত রূপে তুমি ধরা দাও – পুজারিনীর বেশে পূজার ডালি সাজিয়ে তোলো, আবার হৃদয়ের অন্তঃপুরে ভালোবাসার আসর সাজাও। জীবনদেবতা সেজে তুমি অশ্রুমোচন করে ভারাক্রান্ত হৃদয়ে শান্তির প্রলেপ লাগাও। তুমি কি না পারো ! – সুরের ডালি সাজিয়ে এক […]

Read more

জয়

একটা রোগ হঠাৎ করে এসেছিল অনেকদিন আগে; আজও ভবলে ভয় হয় আবার খানিক অবাকও লাগে। আমরা মানুষেরা যখন প্রথম পৃথিবীর কোলে করি পদার্পণ, বেঁচে থাকার লড়াই টাকেই জীবনের লক্ষ্য করে রাখি সারাক্ষণ। ধীরে ধীরে প্রকৃতির বাধাগুলো কাটিয়ে উঠে লড়ে যখন নিজেদের , করে তুলি টেকশই পৃথিবীর বুকে তখন হলো সময় বাড়তি ঢের, কী বা করা যায় তাইতো শুরু হলো ভাগাভাগির খেলা। মানুষ, সে নিজেই কুন্ঠিত হলোনা করে নিজেকে অবহেলা। ধনী নাকি গরীব, উচ্চবর্ণ নাকি নিম্নবর্ণ, এই ধর্ম অথবা সেই ধর্ম […]

Read more

বব ডিলান

মানুষ চেনা যায় আজো গ্রাম্য শহুরে পথে। মেঘেরা জানে গিটারের তারে কতটা বিপ্লব ঘটে। ঠোঁটে সিগারেট মাউথ অর্গান মেপে নেওয়া কতো হাসি আজও আমি কবিতা খুঁজতে তোমার কাছেই আসি। কথা গুলো সব বৃষ্টিধোয়া, তাকে স্বরলিপি বই। তুমিই আছো তোমার মত আমরা তোমার মত নই। উত্তর সব হাওয়ায় দুলছে গানের বিষন্নতাই প্রিয়। গান গাইতে উঠলে আবার কনসার্টে ডেকে নিয়ো। আবার উঠবে গিটার বেজে ডিলান উঠবেন গেয়ে। নোবেল প্রাইজ নাম করেছে বব ডিলানকে পেয়ে। Raju Debnath

Read more

শোনো চড়াই দুষ্টু চড়াই

ঘুলঘুলিতেই বাঁধতে হবে তোমার নতুন বাসা ? কত কি যে নোংরা পড়ে ঘরে মাকে আমি বোঝাই কেমন করে ? পাশে তো ঐ গাছ রয়েছে কৃষ্ণচূড়া নিম আরো কত কি যে তাদের তোমার পছন্দ নয় ? এমন হোলে চলবে কেমন করে ? ভালো কথা বলি শোনো স্বভাবটাকে বদলে ফেলো বাবুই পাখীর কাছে শেখো বাসা বাঁধা গাছে । নিজের গড়া বাসায় থেকো মনের সুখে মর্জি মতো ভাঙ্গবে না কেউ বাসা তোমার বকবে না মা তোমায় আবার । ছোট বোনের কথা শোনো খেও […]

Read more

স্বপ্ন

স্বপ্নগুলো হারিয়ে গেছে নির্জনতার নীড়ে নিন্দুকেরা ভীড় জমাচ্ছে স্বপ্নভাঙ্গার তীরে স্বপ্নকে আজ আঁকড়ে ধরে বাঁচার একটু আশা নেইকো যেথা স্বপ্ন সেথা নেইকো ভালোবাসা প্রতিদিনের নতুন ভোরে নতুন সূর্য উঠে নতুন ভাবে বাঁচি আমি নতুন স্বপ্ন দেখে মনের মাঝে আঁকি আমি স্বপ্নের প্রতিচ্ছবি আপন মনে লিখি আমি নইতো কোন কবি মধ্য দুপুর তপ্ত রোদে স্বপ্ন গড়ার খেলা স্বপ্ন গড়ার কাজের মাঝে গড়িয়ে যায়যে বেলা রৌদের আলোয় স্বপ্ন আমার করে চিকচিক ছুটছি আমি স্বপ্ন নিয়ে হাজারো দিকবিদিক চাঁদের সাথে হারাই আমি কল্পনারই […]

Read more

খুকুর কথা

সকালবেলায় পড়ো পড়োসন্ধ্যা হলেও তাইদিনটা পুরো দিদিমণিরখেলবো কখন মা ? এত পড়া ভাল্লাগে নাকেন বুঝিস নামিনি পারু পূজার সাথেখেলতে দে না মা । রাতে শুয়ে তোর কোলে মাশুনবো ঘুমের ঘোরেরাজার ছেলে দৈত্য মারেঘোড়ায় চড়ে গিয়ে । আঁধার গিয়ে সকাল হোলেতুলিস আমায় ডেকেখাইয়ে দিবি আদর করেবসিয়ে তোর ঐ কোলে । Tapan Kumar Sil

Read more

অতিমারী কোভিড

চলছিলো সব আগের মতো দিনের পরে রাত আকাশে ঐ উড়তো পাখি দূরে সবুজ গাছ । হঠা্ৎ শোনা গেলো বিপদ দূরের সে কোন দেশে আমরা তবু ছিলাম ভেবে সে তো অনেক দূরে । ধীরে ধীরে ঘনিয়ে এলো আকাশ কালো করে রাতের পরে দিন আসেনা রইলো আঁধার হয়ে । কেউ বলে বা হলো এসব শয়তানেরই ফন্দি কেউ। বা তাতে চটছে ভীষণ লাভের গুড়ে বালি । বিশ্বচরাচরের নিয়ম সবাই বলে কড়া রইলো আশা মনের মাঝে ঘাতক পাবে সাজা । Tapan Kumar Sil

Read more
1 2 3