It is possible
Skip to toolbar

প্রতুত্তর

ছোট্ট চিরকুট, সেই ছোটবেলার হাতের লিখা ।খুব নীরবে নিশ্চুপ দীর্ঘশ্বাস। একার মাঝে চুপিসারে গিয়ে হানা দিতে ইচ্ছে হয় স্বপ্নে। অপেক্ষা করো। গল্প বলার গল্পটা তৈরি করি, তখন ভীষন করে গল্প বলবো। পুরোনো আলমারির পুরোনো সেই তাক। যা নিয়ে কত রাগ, কত ক্ষোভ ছিলো আমার।”ক্যেনো নতুন কিনে ন্যাও না -একটা?”.. অথচ আমার নতুন বাড়িতে সবথেকে মূল্যবান হয়ে রইল এটি।  সেখানে তোমাদের শখ আহ্লাদ খুব খুজি। অথচ আমার আহ্লাদের ভীরে তোমাদের শখ এতোবার পরাজিত তা কখনো ভেবেই দেখি নি।.. সেদিন দুপুরে,, ক্ষানিক […]

Read more

টোকাই

“ইশ!! পুড়িটা একদম ঠান্ডা হয়ে গেছে।”- কথাটি বলতে বলতেই গাড়ির জানালা দিয়ে বাইরে রাস্তার ওপরে পুড়ি দুইটা ফেলে দিল রিফা। আর সাথে সাথেই একটা গাড়ি এসে পিসে দিল পুড়ির প্যাকেট টা। রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে সুলায়মান প্লাস্টিকে ভর্তি বস্তা হাতে, পুড়ির প্যাকেট টার দিকে তাকিয়ে আছে অধীর আগ্রহে। (আমার প্রথম চেষ্টা) Shushmita Akter Bushra

Read more

বন্ধু

  “তোর সাথে আমার কাট্টি…যা আর কোনদিন কথা বলবো না।আড়ি,আড়ি, আড়ি….যাব না তোর বাড়ি।”……. একদমে সবগুলো কথা বলেই উল্টো দিকে এক দৌড় দিল চারু।পিছন থেকে আমি ডাকলাম,” পাগলী শুনে তো যাবি কেন যে কলেজে এ আসি নি.. তোর জন্য একটা জিনিস বানিয়েছিলাম যে!দেখবি না?”…অমনি সে ধুম করে দাড়িয়ে পিছন দিকে ঘুরে তাকালো।….. চারুকে আদর করে পাগলী ডাকতাম।পাগলীটা রেগে গেলে খুব সুন্দর লাগতো।গাল আর নাকের আগাটা ঘেমে টুকটুকে লাল হতো। আস্তে আস্তে রাগে আমার কাছে এসে বললো “কি বানিয়েছিস,দেখা আমাকে “…শার্টের […]

Read more