Tag

Himu

Browsing

এই লেখাটা লিখার চিন্তা মাথায় আসে মূলত এক ক্লাসমেটের কোয়ারেন্টাইনে হিমুর দিনকাল নিয়ে লেখা দেখে লোভে পড়ে।লেখার সময় নিজেকে অতিরিক্ত সাহসী মনে হয়েছে, কেননা এরকম লেখায় আমার হাতের আনাড়িপনা আর চরিত্রের খ্যাতির মধ্যেকার ফারাক প্রায় বৃহস্পতি থেকে নেপচুনের দূরত্বের সমতূল্য। সাহসের সাথে অনেক বড় একটা আশাও ছিল যে, নিশ্চয়ই আমার হিমুর জন্যে অপরিসীম ভালবাসা আর হুমায়ুন আহমেদ স্যারের জন্যে অজস্র শ্রদ্ধার ব্যাপারটাও কাউণ্টে আনা হবে। অতিরিক্ততার চূড়ান্ত: আশা করি ধ্রৃষ্টতা মার্জনীয়। …

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির চেহারা মনে করার চেষ্টা করছিলাম।চায়ের টঙ,রফিক মামার কড়া লিকারের চা,ছাত্র/ছাত্রীদের এখানে ওখানে পায়চারি।কিন্তু পরিষ্কার কিছুই মাথায় আসছে না।আউট অফ সাইট,আউট অফ মাইন্ড।ইংরেজগুলোর মাথায় আসলেই বুদ্ধি আছে।নাইলে এইরকম জিনিস কেউ বলতে পারে? এই হিমালয়!তুই কথা শুনছিস আমার?খালু,আপনার কথা কেউ না শুনে থাকতে পারে?আপনি গুরুজন।গুরুজনের কথাই সিদ্ধ। খালু খুশি হয়ে গেলেন।কিছু মানুষ অল্পতেই খুশি হয়।তাদের চিন্তাগুলো সরল।আবার তাদের কষ্টবোধও প্রবল।বিধির বিধান এত বৈচিত্র্যময় কেন কে জানে! হিমালয়,চিন্তা করছি কোয়ারেন্টাইন শেষ হলে বুড়িগঙ্গা ঘুরতে…